Study Material for PSC Sub-Inspector in Food & Supplies Service, 2018

Study Material for PSC Sub-Inspector in Food & Supplies Service, 2018

Spread the love

ভারতের ভূগোল

পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধে (সাড়ে তেইশ ডিগ্রি অক্ষরেখা) পূর্ব-পশ্চিমে বিস্তৃত  Study Material for PSC Sub-Inspector in Food & Supplies  পূর্ণবৃত্ত কাল্পনিক রেখাটি হলো কর্কটক্রান্তি রেখা।  এটি ভারতের ৮টি রাজ্যের উপর দিয়ে গেছে – গুজরাট, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ ছত্তিশগড়।

ঝাড়খন্ড , পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা ও মিজোরাম > কর্কট ক্রান্তি রেখা ভারতের মাঝ বরাবর দিয়ে যাবার জন্য ভারতের জলবায়ু উষ্ণ ও ক্রান্তিয় ।

উত্তর বা দক্ষিণ লিখতে হয় ।মানে কোন গোলার্ধে আছে উত্তর গোলার্ধে না দক্ষিণ গোলার্ধে

আবার মূলমধ্যরেখা পৃথিবীকে পূর্ব গোলার্ধে ও পশ্চিম গোলার্ধে ভাগ করেছে। মূলমধ্যরেখা দিয়ে পূর্ব বা পশ্চিম গোলার্ধের কোন স্থানের অবস্থান নির্ণয় তখন সেটিকে দ্রাঘিমাংশগত অবস্থান বলা হয় । দ্রাঘিমাংশ গত অবস্থানের শেষে পূর্ব বা পশ্চিম লিখতে হয়। মানে কোন গোলার্ধে আছে পূর্ব গোলার্ধে না পশ্চিম গোলার্ধে।

যেমন ভারতের ক্ষেত্রে > ভারতের অক্ষাংশ গত অবস্থান : মূল ভূখণ্ড দক্ষিণে ৮°৪৪’ উঃ (North) (কন্যাকুমারিকা অন্তরিকা) থেকে উত্তরে ৩৭৬’ উঃ (North) (কাশ্মীরের উত্তর সীমা ইন্দিরা কল) পর্যন্ত বিস্তৃত।

> যেহেতু ভারত উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত তাই অক্ষাংশ গত অবস্থানে উত্তর (North) লেখা হয়।

> ভারতের ক্ষেত্রে দ্রাঘিমাংশ অবস্থান: মূল ভূখণ্ড পূর্বে ৯৭°২৫’ পূঃ (East) (অরুণাচল প্রদেশ) থেকে পশ্চিমে ৬৮৭’ পূঃ (East) (গুজরাটের কচ্ছ) পর্যন্ত বিস্তৃত। > মূলমধ্যরেখা সাপেক্ষে ভারত পূর্ব গোলার্ধে অবস্থিত তাই দ্রাঘিমাংশগত অবস্থানের ক্ষেত্রে পূর্ব বা East লেখা হয়।

তাহলে আমাদের দেশ ভারত বর্ষ উত্তর গোলার্ধের দক্ষিণে ৮°৪৪’ উঃ এবং উত্তরে ৩৭৬’ উঃ অক্ষাংশ আর পশ্চিমে ৬৮°৭’ পূঃ এবং পূর্বে ৯৭°২৫’ পূঃ দ্রাঘিমাংশের

মধ্যে অবস্থিত। , (Latitude- 376′ North(Indira col) and 4°44′ North(Cope camorian) > Longitude- 97°25′ E (Arunachal Pradesh) 68°7′ E (Kuchh region)

> ভারতের ভূগোলকে আমরা দুটো ভাগে ভাগ করে পড়ব।

ভারতের ভূগোল এবং পশ্চিমবঙ্গের ভূগোল। > ভারতের ভূগোলে যে যে অংশ গুলো পড়ব সেই অংশ গুলো পশ্চিমবঙ্গের ভূগোলেও পডুতে হবে।

ভারতের ভূগোলে আমরা পড়ব – ভারতের অবস্থান,ভারতের প্রতিবেশী দেশ ভারতের ভূ প্রকৃতি,ভারতের নদ-নদী, ভারতের মৃত্তিকা,ভারতের কৃষি ,ভারতের জলবায়ু ।ভারতের শিল্প,খনিজ শক্তি,বন্দর ড্যাম জলপ্রপাতগিরিপথ ,ন্যাশানাল পার্ক স্যাংচুয়ারি ইত্যাদি।

ভারতের অবস্থান।

> ভারতের ভূখণ্ডটি ভারতীয় টেকটোনিক পাত ও ইন্দো-অস্ট্রেলীয় পাতের মধ্যস্থিতএকটি

গৌণ পাতের উপর অবস্থিত। > ভারত বিশ্বের সপ্তম বৃহত্তম এবং জনসংখ্যায় দ্বিতীয় (চিনের পরই) বৃহত্তম দেশ ।আয়তনে ভারত সমগ্র পৃথিবীর প্রায় ২.৪% ক্ষেত্রফল অধিকার করে রয়েছে এবং জনসংখ্যার বিচারে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ১৭.৭৪% শতাংশ দখল করে রেখেছে।

> আয়তনের বিচারে বিশ্বের প্রথম দশটি দেশ হল -১.রাশিয়া ২. কানাডা ও আমেরিকা ৪.চিন

৫.ব্রাজিল ৬.অস্ট্রেলিয়া ৭.ভারত ৮.আর্জেন্টিনা ৯.কাজাখাস্তান ১০.আলজেরিয়া।

> ভারতের অবস্থান বুঝতে গেলে অক্ষাংশ ও দ্রাঘিমাংশর ব্যাপারে জানতে হবে। > পৃথিবীকে নিরক্ষরেখা উত্তর গােলার্ধে ও দক্ষিণ গােলার্ধে ভাগ করেছে । আর মূল মধ্যরেখা

পৃথিবীকে পূর্ব গোলার্ধে ও পশ্চিম গোলার্ধে ভাগ করেছে।

নিরক্ষরেখার সাহায্যে উত্তর বা দক্ষিণ গোলার্ধে যদি কোন স্থানের অবস্থান নির্ণয় করা যায় (কৌণিক দুরত্ব) তখন সেটি অক্ষাংশ গত অবস্থান বলে । অক্ষাংশ গত অবস্থানের শেষে

SEE THIS POST VERY IMPORTANT 

New brand ambassador list 2018 part 3


Spread the love

Leave a Reply

Do NOT follow this link or you will be banned from the site!